পেন্সিলে আঁকা পরী – হুমায়ূন আহমেদ

পেন্সিলে আঁকা পরী pdf বই হুমায়ূন আহমেদ। লেখক হুমায়ূন আহমেদের লেখা “পেন্সিলে আঁকা পরী” বইটির পিডিএফ আমাদের থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন। লেখক হুমায়ূন আহমেদের লেখা এই বইটি একজাতীয় উপন্যাস। লেখক হুমায়ূন আহমেদের অন্যান্য জনপ্রিয় বইগুলোর মধ্যে এটিও একটি অন্যতম জনপ্রিয় বই। নিচের ডাউনলোড লিংক থেকে পেন্সিলে আঁকা পরী pdf book ডাউনলোড করে নিন।

পেন্সিলে আঁকা পরী বইটি সম্পর্কে আরও কিছু

বইয়ের নামঃ পেন্সিলে আঁকা পরী

লেখকঃ হুমায়ূন আহমেদ

ভাষাঃ বাংলা

পিডিএফ সাইজঃ ৪ এমবি 

পাতাসংখ্যাঃ ১২৬  

বিষয়ঃ উপন্যাস 

পেন্সিলে আঁকা পরী pdf download

পেন্সিলে আঁকা পরী pdf download

পেন্সিলে আঁকা পরী বই রিভিউ

হুমায়ূন আহমেদের ‘পেন্সিলে আঁকা পরী’ একটি জনপ্রিয় ভালোবাসার উপন্যাস। উপন্যাসটিতে মোবারক সাহেব ছিল একজন জাহাজ ব্যবসায়ী। তার অনেক টাকা-পয়সা রয়েছে। সে একজন কোটিপতি। কোটিপতির থেকে যদি কোন বড় পতি দেখা যায় তাহলে সেই হবে। তার সব কিছু রয়েছে।  তবু তার একটি জিনিস নেই। সেটি হল সুখ। এইসব সুখ নামক জিনিসটা তার জীবনের নেই। মোবারক সাহেব কে একটি জিনিস সবচেয়ে বেশি কষ্ট দেয়,  সেটি হল  বিস্মিত হওয়ার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলা। তিনি কিছুটা আনন্দ এবং বিস্মিত হওয়ার জন্য  মাঝে মাঝে নিম্ন স্তরের কাজও করে থাকেন। এমনকি তার জীবনের বৈচিত্র্য এর জন্য মাঝে মাঝে টেপীর মত মেয়েদের তার জীবনে নিয়ে আসে।

টেপী- হল এই উপন্যাসের দ্বিতীয় চরিত্র।  এ উপন্যাসে  প্রধানত তিনটি চরিত্র রয়েছে। একটি টেপী এবং আরেকটি রেশমা যে কিনা  ফিল্মের এক্সট্রা হিসেবে কাজ করে। সর্বশেষ মিতু যে তার মা এবং বোনকে নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকে এবং তাদের সংসার বহুকষ্টে চলে। একসময় মিতু কিভাবে  এই রেশমা এবং টেপী এর চরিত্রে রূপান্তরিত হয় তা নিয়েই এ  উপন্যাসটি। মূলত এই উপন্যাসটিতে রয়েছে জীবনের  জটিল মারপ্যাচ,  জীবনের বাস্তবতা এবং সংসার জীবনের ঘানি টানার  কথা। 

এই উপন্যাসটিতে হুমায়ূন আহমেদ সবগুলো চরিত্রকে অসাধারণভাবে একটা বাস্তব রূপ দিয়েছেন এবং আমাদের সামনে বাস্তবতাকে তুলে ধরেছেন। এক-কথায় বলতে গেলে এটি হুমায়ুন আহমেদ এর জনপ্রিয় বই সম্পূর্ণ  বইটি পড়তে হলে আমাদের এখান থেকে পেন্সিলে আঁকা পরী pdf download করে ফেলুন।  

হুমায়ূন আহমেদের অন্যান্য সকল বই ডাউনলোড করার জন্য আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন এবং বইগুলোর আপডেট দ্রুত পাওয়ার জন্য আমাদের ফেসবুকে পেজে লাইক  দিয়ে সাথে থাকুন। 


Leave a Comment