বেলা ফুরাবার আগে ২- আরিফ আজাদ

0
39

বেলা ফুরাবার আগে ২ pdf। লেখক আরিফ আজাদের “বেলা ফুরাবার আগে ২” বইটি ইনশাল্লাহ ২০২২ সালের বইমেলায় আসতে যাচ্ছে। তিনি কিন্তু বইটির অর্ধেক এখনই দেখে ফেলেছেন।  আর বাকিটুকু লেখা বাকি। এখন বইটি সম্পর্কে কিছু তথ্য আমরা জানি। সেগুলি আপনারা এই আর্টিকেলে জানতে পারবেন। Bela furabar age 2 book pdf  

বেলা ফুরাবার আগে ২ বইটি সম্পর্কে আরও কিছু

বইয়ের নামঃ বেলা ফুরাবার আগে ২

লেখকঃ আরিফ আজাদ 

ভাষাঃ বাংলা

পিডিএফ সাইজঃ শীঘ্রই আসছে 

বিষয়ঃ আদর্শ 


বেলা ফুরাবার আগে ২ pdf

বেলা ফুরাবার আগে ২ বই রিভিউ 

লেখক আরিফ আজাদের বেলা ফুরাবার আগে ১ বইটি অত্যন্ত দারুন একটি বই ছিল। বইটি আপনারা যদি না পরে থাকেন তাহলে এই লিংকে ক্লিক করে কমেন্ট বক্সে থাকা ডাউনলোড লিংকে ক্লিক করে ডাউনলোড করে নিন।

বেলা ফুরাবার আগে ২ বইটি আসার সাথে সাথে আমরা এটির রিভিউ লিখে ফেলবো। কিন্তু এই বইটির কয়েকটি লাইন দেখে নিই যে বইটিতে কিসের ইঙ্গিত রয়েছে।

বেলা ফুরাবার আগে ২ বইয়ের কয়েকটি লাইন

নবী ইউসুফ(আ) আল্লাহ তায়ালা মিশরের মন্ত্রীর পদে আসীন করেছেন। কিন্তু দেখুন আল্লাহ তাআলা হযরত ইউসুফ (আ) কে মর্যাদার এই স্তরে উন্নীত করতে কত বড় পরীক্ষার সম্মুখীন করেছিলেন। ভাইদের দ্বারা ছোটবেলায় অন্ধকার কূপে নিক্ষিপ্ত হওয়া, বনিকদলের দ্বারা ক্রীতদাস হিসেবে অন্যত্র বিক্রি হয়ে যাওয়া, বাদশাহর স্ত্রীর অশালীন প্রলোভন এবং সর্বোপরি জেল। কী এক তীব্র সংকট আর সংগ্রামের মধ্য দিয়েই না কেটেছে নবি ইউসুফ (আ) সেই দিনগুলো। 

কিন্তু তার জীবনের শেষ দিন টা কি রকম ছিল? 

আমরা সকলেই জানি যে জীবনের এক সময় নবি ইউসুফ (আ) তার হারানো সবকিছু ফিরে পেয়েছিলেন। তাঁর দয়াময় পিতা, ভাই এবং তার পরিবার। একদিন মিশরে অসহায় ক্রীতদাস হিশেবে যে বালক প্রবেশ করেছিলো, নির্দিষ্ট সময়ের পর আল্লাহ ‘তায়ালা তাঁকে আসীন করে দিলেন সেখানকার সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এবং সম্মানজনক পদে। তাঁকে দান করলেন নবুয়্যাত এবং একজন সম্মানিত নবি হিসেবে পৃথিবীতে অধিষ্ঠিত করলেন তাকে।

মুসা (আ) এর জন্য দরিয়ায় পথ তৈরি করে দিয়েছিলেন যিনি, একদিন তিনিই কিন্তু তাঁকে দরিয়ায় নিক্ষেপ করার আদেশ করেছিলেন।

নবি ইউনুস (আ)  মাছের পেটের ভেতর থেকে বেঁচে আসাটা আমাদের পুলকিত করে। কিন্তু সেই পুলকের পেছনের কার্যকারণ কতোখানি ভীতি-জাগানিয়া তা কি কখনো ভেবে দেখেছি আমরা? 

গভীর সমুদ্র এর নিচে সেই বিশালাকার মাছের পেটে, যেখানে দুনিয়ার কোন আওয়াজ, কোন শব্দ পৌঁছে না, যেখানে শুধু বিস্তৃত জায়গাজুড়ে অন্ধকার আর অন্ধকার— এমন পরিস্থিতিতে আরশের অধিপতি নবি ইউনুস (আ) এর জন্য যথেষ্ট হয়ে গেলেন।

তিনি যথেষ্ট হলেন ঠিক-ই, তবে নবি ইউনুস আলাইহিস সালামকে একটা সুকঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি করার পরে।

আপনি হয়তো কোন একটা সংগ্রামের ভেতর দিয়ে যাচ্ছেন এবং সেই সংগ্রাম হতে পারে ভীষণ দুর্বিষহ! আপনি হয়তো দগ্ধ, আপনার প্রিয় কোন মানুষকে জীবন থেকে হারিয়ে ফেলার যন্ত্রণায়। হয়তো আপনি ভীষণ নাজেহাল কোন অপ্রিয় বিচ্ছেদ-ব্যথায়। আপনাকে কুরে কুরে খাচ্ছে অনাকাঙ্ক্ষিত কোন সমস্যা হয়তো। আমার জীবন আপনার ছক অনুযায়ী চলছেই না এটাও হতে পারে। 

হ্যাঁ, আপনি ক্লান্ত হতে পারেন মাঝে মাঝে জীবনের এই সংগ্রামে । তবে দমে যাবেন না। আপনি কাঁদতেও পারেন বিচ্ছেদ-ব্যথায়, যেভাবে ইয়াকুব (আ) কাঁদতে কাঁদতে চোখের জ্যোতি হারিয়েছিলেন ইউসুফ (আ) হারিয়ে। অশ্রু ঝরান,  কাঁদুন, ব্যাকুল হোন— কিন্তু মাথায় রাখবেন, কখনোই আল্লাহকে এর জন্য অভিযুক্ত করবেন না। মনে ধৈর্য রাখুন আল্লাহর উপর আস্থা রাখুন। আপনার জীবনের যে অংশটা এখনো বাকি, জীবনের যে অংশে আপনার জন্যে কী অপেক্ষা করে আছে তা আপনি জানেন না— তার জন্যে ভুলেও আল্লাহকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাবেন না।

হযরত ইউনুস (আ) মাছের পেটে বিলীন হয়ে আল্লাহকে অভিযুক্ত করেননি। শিশু মুসা (আ) দরিয়ায় নিক্ষেপ করে তাঁর মা অভিযোগের তীর ছুঁড়ে দেননি আল্লাহর দিকে। নবি ইয়াকুব (আ) প্রিয় পুত্র ইউসুফকে হারিয়ে ভীষণ বিচ্ছেদে কাতর হয়ে পড়ার পরেও একটাবারের জন্যও কিন্তু  আল্লাহর ওপর থেকে ভরসা হারাননি । তিনি এত কেঁদেছিলেন যে তার চোখের জ্যোতি চলে গিয়েছিল। তারপরেও অন্তরের গভীরে তাঁর ছিলো আল্লাহর ওপর টইটম্বুর তাওয়াক্কুল। তিনি জানতেন যে— আল্লাহ তাঁকে নিশ্চয় একটা সুন্দর পরিণতির দিকে টেনে নিয়ে যাচ্ছেন। 

বেলা ফুরাবার আগে ২- আরিফ আজাদ শীঘ্রই আসছে ২০২২ সালের বইমেলাতে 💓

আরিফ আজাদের অন্যান্য সকল বই পেতে আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here