স্মৃতিগন্ধা বই pdf download- সাদাত হোসাইন

সাদাত হোসাইন এর স্মৃতিগন্ধা বইটির পিডিএফ আসার সাথে সাথে আমরা এখানে বইটির পিডিএফ দিয়ে দিবো। এছাড়াও রকমারি থেকে বইটি কিনতে পারবেন আপনি। 

 

স্মৃতিগন্ধা বই pdf download- সাদাত হোসাইন

স্মৃতিগন্ধা বই কিছু লাইন 

নির্জন জায়গাটা। কোনো সাড়া-শব্দ যেন কোথাও নেই। ফলে পেছনের মানুষটার পায়ের শব্দ যেন একটু বেশিই কানে বাজছে। চট করে ফরিদ থমকে দাঁড়ালো। দেখতে চায় সে যে লোকটা এবার কী করে! তবে স্বাভাবিক ভঙ্গিতেই তার খুব সামনে দিয়ে চলে গেলো লোকটা এবং এতে সে অবাক হলোও বটে। যেন তাকে দেখেইনি এরকমটা মনে হলো। তারপর হারিয়ে গেলো গলির মধ্যে। এবার যেন খানিক বিভ্রান্ত হয়ে পড়ল ফরিদ। সে কি তবে ভুল ভেবেছিল? কিন্তু এই বিষয়টা স্বস্তি দিল না তাকে। বাসায় ফিরে দেখে চুপচাপ হয়ে বসে আছে পারু। মুখ তার  ভার। ফরিদ বলল, ‘দেরী করে ফেললাম খুব নাকি আমি?’

পারু বলল, ‘না। এখনোতো ভোর অবধি রাত বাকী।’

‘তাই?’

‘হুম।’

‘তাহলে আরও দেরী করে ফিরব?’

‘আপনার ইচ্ছে।’

‘তোমার কোনো ইচ্ছে নেই?

‘আমার ইচ্ছে থাকলেই কী আর না থাকলেই কী?’

‘কিছুই না?’

‘উহু।’

‘আমি না থাকলে তোমার মন খারাপ হয়?’

‘না।’

‘সত্যি না?’

পারু এবার আর কোনো জবাব দিলো না। ফরিদ তার সামনে এসে বসল এবং তারপর বলল, ‘মাঝে মাঝে আমার কী ইচ্ছে হয় জানো?’

পারু কথা বলল না। তবে মুখ তুলে তাকাল। ফরিদ বলল, ‘আমার ইচ্ছে করে সারাক্ষণ এভাবে তোমার মুখোমুখি বসে থাকি। তারপর ফিসফিস করে জীবনানন্দের কবিতাটা একটু অন্যরকম করে বলি ‘থাকে শুধু অন্ধকার, মুখোমুখি বসিবার, আমি আর পারুলতা সেন।’ বলে হাসল ফরিদ। কিন্তু পারু হাসল না। সে গম্ভীর গলায় বলল, ‘পারুলতা সেন কে?’

‘তুমি।’

‘আমি সেন?’

‘উহু।’

‘তাহলে?’

‘তাহলে…’। বলে কী ভাবল ফরিদ। তারপর বলল, ‘তুমি হচ্ছো স্মৃতি।’

‘স্মৃতি?’

‘হু।’

‘আমি স্মৃতি হতে যাবো কেন? মানুষ হারিয়ে গেলে স্মৃতি হয়।’

‘উহু, মানুষ আসলে স্মৃতি হয় না। স্মৃতি হয় সময়।’

‘কীভাবে?’

‘এই যে ধরো, আমাদের রোজ কত কত গল্প। কতো কতো স্মৃতি। এগুলো একটু একটু বুকে গেঁথে থাকে। এই যে প্রতিদিনের প্রতিমুহূর্তের তুমি বুকে জমা হতে থাকো, এটাই স্মৃতি। আজ থেকে অনেক বছর পর, যখন আমরা বুড়ো হয়ে যাবো, তখন এই প্রতিদিনের তুমি কল্পনায় একটু একটু করে জেগে উঠতে থাকবে। সেটাতো আসলে সময়ই। তুমিতো তখনও থাকবে। কিন্তু এই সময়টা তখন স্মৃতি হয়ে সুবাস ছড়াতে থাকবে।’

পারু কথা বলল না। ফরিদ বলল, ‘আসলে মানুষ হারিয়ে যায় না। হারিয়ে যায় সময়।’

‘আপনি আবার কঠিন করে কথা বলছেন।’

ফরিদ খানিক চুপ করে থেকে বলল, ‘হুম, বলছি। এই যে প্রতিদিন একটু একটু করে সময় চলে যাচ্ছে। এই সময়টা কি আর কখনো ফিরে আসবে?’

‘উহু।’

‘কিন্তু দেখবে আজ থেকে অনেক বছর পর এই সময়গুলোর জন্য কী কষ্ট হবে আমাদের। মন খারাপ হবে। মনে হবে, ইশ, আবার যদি এই সময়টা ফিরে পেতাম! কিন্তু একটা কথা জানো তো, সময় যতি একবার চলে যায়, তাহলে তা আর কখনো ফিরে আসে না।’

‘হু।’

‘তখন এই সময়গুলোই স্মৃতি হয়ে গন্ধ বিলাবে। সুবাস ছড়াতে থাকবে। স্মৃতিগন্ধা হয়ে উঠবে।’

কোথাও একটা পোস্টবক্স নেই, অথচ বুকের ভেতর চিঠি জমে জমে মেঘের মিনার,

‘তোকে একটা চিঠি দিয়েছিলাম, পাসনি?’

‘চিঠি?’ পারু যেন জানেই না এমন ভঙ্গিতে বললো।

‘হুম।’

‘উহু।’

‘সত্যি পাসনি?’ ভারি অবাক হলো ফরিদ।

‘নাহ।’

এবার ফরিদকে খুব বিচলিত মনে হলো। সে বললো যে, ‘একটা কবিতা লেখা ছিলো দুই লাইনের।’

‘কবিতা?’

‘হুম।’

‘আপনি যে বললেন চিঠি? কবিতা কী করে চিঠি হয়?’

‘হয় না?’

‘না।’

‘চিঠি হলে তবে কী কী থাকতে হয়?’

তার কথা শুনে হেসে ফেলেছিলো ফরিদ। বলেছিল, ‘তুই চিঠি লিখতে পারিস?’

‘না।’

‘কখনো লিখিসনি?’

‘একবার মাত্র।’

‘কাকে?’

‘আমার বড় মামা থাকেন কলকাতায়। তাকে লিখেছিলাম। বাবা শিখিয়ে দিয়েছিলেন যে সম্বোধনে শ্রীচরণেষু লিখতে হয়। কিন্তু ওইটুকুতেই দুটো বানান ভুল করে ফেলেছিলাম আমি।’

‘পুরো চিঠির অবস্থা তাহলে কী ছিলো?’

পারু ম্লান মুখে বললো, ‘সেটাই। এই নিয়ে খুব রেগে গিয়েছিলেন মামা। তিন পাতার ফিরতি চিঠি পাঠিয়ে আমাকে জানিয়েছিলেন যে আমার ভবিষ্যৎ অন্ধকার।’

ফরিদ ইচ্ছে করেই গুরুগম্ভীর ভঙ্গীতে বললো, ‘তো অন্ধকার থাকলেতো সেখানে আলো জ্বালাতে হয়, তাই না?’

‘হ্যাঁ হয়।’

‘তো আলো কীভাবে জ্বালাতে হয়, জানিস?’

‘জানি।’

‘কীভাবে?’

‘বিয়ে করে ফেলতে হয়।’ বলেই মুখ টিপে হাসলো পারু।

যেন আকাশ থেকে পড়েছে, এমন ভঙ্গিতে ফরিদ বললো, ‘বিয়ে করে ফেলতে হয়?’

‘হুম।’ পারু হাসি থামাতে পারছে না। ‘ঠাকুমা বলেন মেয়েদের সত্যিকারের আলো হলো তাদের স্বামী। স্বামী যদি বিদ্যা, বুদ্ধিতে আলোকিত হয়, তাহলেই মেয়েরা আলোকিত হবে।’

ফরিদ পারুর চিন্তা ও কথায় যারপরনাই হতাশ হলো। কিন্তু এই মেয়েটা যেন কেমন। তার চোখ ভর্তি মায়া। সে তাকালেই বুকের ভেতর অদৃশ্য তীরের ফলা এসে অনবরত বিঁধতে থাকে। সেই ফলায় সম্ভবত বিশেষ কোনো বিষ মাখানো থাকে।

ওই বিষের যন্ত্রণা থেকে আর উপশম মেলে না। 

সাদাত হোসাইনের অন্যান্য বই এর পিডিএফ ডাউনলোড করার জন্য আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন।

Leave a Comment